May 29, 2024, 9:10 am
শিরোনাম :

টেকনো ড্রাগস’কে দশ লক্ষাধিক টাকা অর্থদণ্ড ও প্রায় ত্রিশ লক্ষ টাকার অবৈধ ড্রাগস ধ্বংস

মো. মোস্তফা খান, নরসিংদী:

টেকনো ড্রাগস লিমিটেডকে দশ লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান ও প্রায় ত্রিশ লক্ষ টাকা মূল্যের অবৈধ ড্রাগস বিনষ্টিকরণ করেন নরসিংদী জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার (১৫/০৯/২০) তারিখ নরসিংদী জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন এর নির্দেশক্রমে শিবপুর উপজেলার বিসিক শিল্পনগরী এলাকায় টেকনো ড্রাগস লিমিটেড কারখানায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: রইছ আল-রেজুয়ান।

জানা যায়, টেকনো ড্রাগস লিমিটেড কারখানাটি মৎস্য ও পশুখাদ্যের প্রিমিক্স হিসেবে নিবন্ধিত ছিলো যা ২০১৭ সালে মেয়াদোত্তীর্ণ হয় এবং কারখানায় নোংরা পরিবেশে শ্রমিকদের দ্বারা এসব প্রিমিক্স তৈরি করা হচ্ছিলো। কারখানার দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলায় টেকনো ড্রাগস লিমিটেড অবৈধভাবে বিভিন্ন ধরনের ইনজেকটাবোল এন্টিবায়োটিক, স্টেরয়েড ড্রাগ, ভারমিক ইনজেকশন , কিটোভেট ইনজেকশন , টোলফা ভেট ইনজেকশন, বিভিন্ন ধরনের হরমোনাল ড্রাগস, এমনকি জন্মনিরোধক পিল নরজেস্ট উৎপাদন ও প্রক্রিয়াজাত করতো। অথচ টেকনো ড্রাগস লিমিটেড উপরিউক্ত মেডিসিন উৎপাদন ও প্রক্রিয়াজাতের জন্য ঔষধ বিভাগ থেকে কোন নিবন্ধন করে নি।
বিজ্ঞ ভ্রাম্যমাণ আদালত উপরিউক্ত অপরাধ আমলে নিয়ে টেকনো ড্রাগস লিমিটেডকে ড্রাগ এ্যাক্ট ১৯৪০ অনুযায়ী দশ লক্ষ (১০০০০০) টাকা এবং মৎস্যখাদ্য ও পশুখাদ্য আইন ২০১০ অনুযায়ী পঞ্চাশ হাজার (৫০০০০) টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন।

উক্ত কারখানা হতে প্রায় ৩০ লক্ষ টাকার মালামাল জব্দ করা হয় এবং ঘটনাস্থলেই ধ্বংস করা হয়।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে শিবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কাবিরুল ইসলাম খান এবং সহকারী কমিশনার ভূমি শ্যামল বসাক সার্বিক কার্যক্রমে সহায়তা করেন।

এছাড়াও ভেটেরিনারি সার্জন নরসিংদী সদর, ড্রাগ সুপার নরসিংদী, বাংলাদেশ পুলিশ ও বাংলাদেশ আনসার মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সহায়তা করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা