1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : News : Badol Badol
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন

নরসিংদীতে ডাকাতির লুন্ঠিত মালামাল সহ গ্রেপ্তার ৭

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৪৮ বার পঠিত

নরসিংদী প্রতিনিধি :

নরসিংদীর শিবপুরে ডাকাতির লুন্ঠিত মালামাল সহ ৬ জন ডাকাত এবং লুণ্ঠিত মালামাল ক্রয়কারী সহ ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এ সময় তাদের কাছ থেকে নগদ অর্থ ৫ লক্ষ টাকা, ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ০১টি পাইপগান ও ৪ রাউন্ড গুলি ও ০১টি প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়।

আজ সোমবার দুপুরে নরসিংদী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান সংবাদ সম্মেলন করে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

গ্রেপ্তারকৃত হলো- রায়পুরা খামারপাড়া বটতলি গ্রামের সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে শেখ ফরিদ (৩৫), শিবপুরের নৌকাঘাটা গ্রামের রাজু মিয়ার ছেলে আবুল কাশেম (৪২), সদর উপজেলার চম্পকনগর গ্রামের আঃ রহিম ছেলে নূরুল ইসলাম (২৯), রায়পুরায় চড়-আড়ালিয়া এলাকার রাজা মিয়া ছেলে মোক্তার হোসেন (৪৪) ও আল আমিন (২৯), সদর উপজেলার বকশালীপুরা মৃত আয়নাল মিয়ার ছেলে রাজিব (২২) ও লুন্ঠিত মালামাল ক্রয়কারী শিপন চন্দ্র সূত্রধর (৩৪)।

সংবাদ সম্মেলনে জানায়, চলতি বছরের ২৬ জানুয়ারী রাত ৩টার দিকে শিবপুরের যশোর ইউনিয়নের দেবালেরটেক গ্রামে হাজ¦ী মোঃ মেজবাহ উদ্দিন মেজুর বাড়ীতে ১০/১২ জন ডাকাত দল বারান্দার গ্রীল কেটে ঘরে ডুকে। ওই সময় গৃহকর্তির গলায় ছুরি ও পাইপগান ধরে জিম্মি করে ফেলেন। পরে আলমারিতে থাকা নগদ উনিশ লক্ষ টাকা, প্রায় ১৬ ভরি স্বর্ণালংকার, ১টি মোবাইল ফোন সহ মোট তিপান্ন লক্ষ ছত্রিশ হাজার টাকার মালামাল লুষ্ঠণ করে নিয়ে যায়। এই ঘটনার মেজবাহ উদ্দিন মেজু বাদি হয়ে শিবপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

এরই ধারাবাহিকতায় নরসিংদী ডিবি পুলিশ ওসি খোকন চন্দ্র সরকারের নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের একটি টিম জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত ৬ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করে। ওই সময় তাদের কাছ থেকে নগদ পাঁচ লক্ষ তেইশ হাজার পাঁচশত টাকা, ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ১টি পাইপগান ও ৪ রাউন্ড গুলি ও ১টি প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের দেয়া ত্যথের ভিত্তিত্বে লুণ্ঠিত মালামাল ক্রয়কারী শিপন চন্দ্র সূত্রধরে গ্রেপ্তার করে এবং ১৭.৫২ গ্রাম গলিত স্বর্ণ উদ্ধার করে।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান (পিপিএম) বলেন, অপরাধ করে পার পাওয়ার কোন সুযোগ নেই। অপরাধীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবেই। তিনি বলেন, জেলায় ডাকাতি রোধে পুলিশ সর্বোচ্ছ চেষ্টা চালিয়ে ডাকাতদের গ্রেপ্তার করা হয় এবং লুন্ঠিত মামলামাল উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা পেশাদার ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য। তাদের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক করে মামলা রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন নরসিংদী পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান (পিপিএম), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপস), অনির্বাণ চৌধুরী সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (শিবপুর সার্কেল) মেজবাহ উদ্দিন, ওসি ডিবি খোকন চন্দ্র সরকার সহ পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা।

এদিকে মাদক ব্যাবসাকে কেন্দ্র নরসিংদীর সংগীতা এলাকায় সুমন নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩জনকে গ্রেপ্তার করেছে সদর মডেল থানা পুলিশ। রোববার রাতে ঘোড়াদিয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ঘোড়াদিয়া গ্রামের বাহা উদ্দিন ভূইয়ার ছেলে মোঃ ইমরুর কায়েছ মিশু (২৮), একই এলাকার রাজু মিয়ার ছেলে মোঃ নাঈমুর রহমান পুলক (২৭) ও  আয়েছ আলী’র ছেলে সজল (৪২)কে গ্রেপ্তার করে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..