May 18, 2024, 12:14 am
শিরোনাম :
আসছে পলাশ-মিতু’র বিয়াই বিয়াইন সাইফুল বারীর কথায় গাইলেন কামরুজ্জামান রাব্বী ডেপুটি স্পিকারের সঙ্গে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের নেতাদের সাক্ষাৎ রায়পুরায় হত্যা মামলার আসামীর বিরুদ্ধে বাদীপক্ষের বসতঘরে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের অভিযোগ আমি আপনাদের সেবা করতে এসেছি শাসন করতে নয়; মত বিনিময় সভায় লায়লা কানিজ কোন তরুণ-তরুণী আর কর্মহীন ও বেকার থাকবে না : পলক শেরপুরে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ উপলক্ষে বিজ্ঞান মেলার শুভ উদ্বোধন বেলাবতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রার্থীদের ইশতেহার ঘোষনা আমার দরজা আপনাদের জন্য সবসময় খোলা থাকবে; শেরপুর নবাগত এসপি আকরামুল আবারও বেসিস সভাপতি রাসেল টি আহমেদ, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি এম রাশিদুল হাসান

বাগমারার তাহেরপুর-শিকাদারি পর্যন্ত সড়কটির বেহাল দশা

রাজশাহী (বাগমারা) থেকে
রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার তাহেরপুর হতে শিকাদারি পর্যন্ত রাস্তাটি বর্তমানে চলাচলকারীদের জন্য মরন ফাঁদ হয়ে দাঁড়িয়েছে। রাস্তার জুড়ে বড় বড় গর্ত ও খানাখন্দের ফলে প্রতিনিয়তই ঘটছে দূর্ঘটনা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, মাত্র ৩ বছর আগে করা এ সড়কটি চলাচলের প্রায় অযোগ্য হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে মাছ বহনকারী পিকআপ ভ্যান ও ট্রাক যাতায়তের ফলে সড়কটির এমন বেহান দশা বলে দাবী ভোক্তভোগিদের। বিশেষ করে চেউখালি থেকে রামরামা জলপাইতলা যাবার পথ চলাচলের প্রায় অযোগ্য হয়ে পড়েছে। সড়কের মধ্যে গর্তগুলো যেন এক একটা মরন ফাঁদ, প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে দুর্ঘটনার। গেল বর্ষায় নতুন করে সৃষ্টি হওয়া খানাখন্দ বর্তমানে বড় বড় গর্তে পরিণত হয়েছে।

সড়কের এমন বেহাল দশায়ও দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের অধিনে প্রায় ১০ কিলোমিটার সড়কের নেই কোন সংস্কার । দীর্ঘদিন ধরে অযোগ্য হয়ে পড়া সড়কটি দ্রুত সংস্কারের পাশাপাশি রাজশাহী থেকে আত্রাই যাবার উপজেলার প্রধান সড়কপথটি এলজিইডি থেকে সড়ক বিভাগে অধীনে নেয়ার দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

সম্প্রতি সড়কের কিছু স্থানে নামকাওয়াস্তে সংষ্কারের নামে খানাখন্দগুলো ভরাট করলেও বর্তমানে তা আগের রূপেই সাদৃশ্য হচ্ছে। ফলে সড়কটি বর্তমানে যান চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে। দ্রুত সড়কটি সংস্কারে কাজ হাতে না নিলে যে কোন সময় বড় কোন দূর্ঘটনায় সড়কে ঝড়ে পড়তে পারে আরও অনেক তাজা প্রাণ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা