1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:১৬ পূর্বাহ্ন

সিনোফার্মের টিকাগ্রহীতারা ওমরাহ নিয়ে অনিশ্চয়তায়

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৪ আগস্ট, ২০২১
  • ১৭৪ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

ওমরাহ পালনের জন্য সৌদি যাওয়ার ক্ষেত্রে দেশটির কর্তৃপক্ষ ফাইজার, মডার্না, অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও জনসন অ্যান্ড জনসনের করোনাভাইরাসের টিকা অনুমোদন দিয়েছে।

অর্থাৎ বিভিন্ন দেশের যেসব নাগরিক সৌদি আরবে যাবেন, তাদের এসব টিকা নিয়ে যেতে হবে। এতে চীনের সিনোফার্মের টিকা গ্রহণকারী বাংলাদেশিরা ওমরাহ-হজ নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছেন।

এ পরিস্থিতিতে বিষয়টির সুরাহার জন্য হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে।

মহামারির কারণে দুবছর বন্ধ রাখার পর এবার ওমরাহ পালনের অনুমতি দেয় সৌদি আরব। কিন্তু বিশ্বব্যাপী মুসল্লিদের ওমরাহ হজ পালনে কঠোর বিধি-নিষেধ জারি করেছে দেশটির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়।

সে সময় সৌদির হারামাইন শরিফাইন ডিজিটাল মিডিয়া নামের একটি প্লাটফর্ম ওমরাহ পালনে সৌদি কর্তৃপক্ষের আরোপিত বেশ কিছু বিধি-নিষেধ উল্লেখ করে। বিধি-নিষেধের প্রথমটিই ছিল ওমরাহ পালনে ইচ্ছুক মুসল্লিদের আগে থেকেই বাধ্যতামূলকভাবে করোনাভাইরাসের সম্পূর্ণ ডোজ টিকা নিতে হবে। এক্ষেত্রে ফাইজার, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা নিতে বলেছে দেশটির মন্ত্রণালয়। এসব টিকার দুটি ডোজ গ্রহণ করা ছাড়া সৌদি আরবে প্রবেশ করা যাবে না।

তবে কেউ যদি চীনের দুই ডোজ টিকা নিয়ে থাকে তাকে অবশ্যই ফাইজার, মডার্না, অ্যাস্ট্রাজেনেকা অথবা জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকার বাড়তি বুস্টার ডোজ গ্রহণ করতে হবে বলে ঘোষণা দেয়। যদিও বিধি-নিষেধ যে কোনো সময় পরিবর্তন ও পরিমার্জন করতে পারে সৌদির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়।

ফলে বাংলাদেশি যারা সিনোফার্মের টিকা নিয়েছেন তারা ওমরাহ পালন নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে গেছেন। এ বিষয়ে বেসামরিক বিমান পরিবহন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী বলেন, সিনোফার্মের টিকা নিয়ে ওমরাহ করতে যাওয়ার বিষয়ে সৌদি আরবের নির্দেশনা প্রয়োজন।

সৌদি আরবের জেদ্দা থেকে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সেলর (হজ) জহিরুল ইসলাম বলেন, সিনোফার্মের টিকার বিষয়ে সৌদি সরকার থেকে শিগগির ইতিবাচক সিদ্ধান্ত আসতে পারে। বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত ঈসা ইউছুফ ঈসা আলদুহাইলান বলেন, মহামারির কারণে ওমরাহ যাত্রীর সংখ্যা ৬০ হাজারে সীমাবদ্ধ থাকলেও পরে তা বাড়ানো হবে।

প্রসঙ্গত, বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারি ছড়িয়ে পড়ার পর দুই বছর যাবত সৌদিতে বিদেশিদের জন্য হজ ও ওমরাহ পালন বন্ধ রাখে। শুধুমাত্র দেশটিতে অবস্থানরত মুসল্লিরাই চলতি বছর হজ পালন করে এবার।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..