1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:০১ পূর্বাহ্ন

শ্রীপুরে প্রেমিকাকে ধর্ষণের ভিডিও ধারণ; ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দিয়ে ভাইরাল’র অভিযোগ

আবু সাইদ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর, ২০২১
  • ৮৮ বার পঠিত

গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুরের শ্রীপুরে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ এবং সেই চিত্র মোবাইলে ভিডিও  ধারণ করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মো: নাইম মৃধা (২৫) নামে উপজেলার তেলিহাটি গ্রামের এক যুবকের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ  করে ধর্ষিতার বাবা।

অভিযুক্ত  নাইম  তার প্রেমিকাকে ধর্ষণের সেই ভিডিও চিত্র ইন্টারনেটে  ছড়িয়ে দিলে তা ভাইরাল হয়ে পড়লে ভিকটিমের পরিবার তা জানতে পারে বলে অভিযোগে বলা হয়।

অভিযুক্ত মো: নাইম মৃধায় তেলিহাটি গ্রামের মো: খোকন মৃধার ছেলে এবং তেলিহাটি মোড় এলাকার স্টেশনারী ব্যবসায়ী।

অভিযোগের ভিত্তিতে ভিকটিমের বাবার সাথে কথা বলে জানা যায়, ভিকটিম তেলিহাটি উচ্চ বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করা অবস্থায় স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে নাইমের দোকানে বিভিন্ন সময় খাতা কলম কিনতে যেতো। সেই সূত্র ধরে নাইমের সাথে তার পরিচয় হয়। পরিচয়ের এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। নাইম গোপনে ভিকটিমকে নিয়ে বিভিন্ন স্থানে ঘুরতে যেতো। আনুমানিক বছরখানিক পূর্বে নাইম ভিকটিমকে ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে মাওনা চৌরাস্তা ও বাঘের বাজারের মাঝামাঝি  জায়গায় অবস্থিত একটি হোটেলে নিয়ে গিয়ে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার ইচ্ছের বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। এসময় নাইম ধর্ষণের ভিডিও তার মোবাইলে ধারণ করে রাখে। ভিকটিম নাইমকে ভিভিওটি মুছে ফেলার অনুরোধ করলে সে তা মুছে ফেলে দিয়েছে বলে তাকে জানায়।

কিছুদিন পরে নাইম ভিকটিমকে খবর দিয়ে দেখা করতে বলে। কথা অনুযায়ী ভিকটিম নাইমের সাথে দেখা করে। এসময় নাইম ভিডিওর কথা বলে পূনরায় ভিকটিমকে অনৈতিক কাজের প্রস্তাব দেয়। এতে  সে আপত্তি জানালে নাইমের সাথে তার মনোমালিন্ন হয়। পরবর্তীতে নাইম ভিকটিমের কাছে ৫ লাখ টাকা দাবী করে। টাকা না দিলে ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকী দেয় সে।

ভিকটিমের বাবা আরও জানান, আনুমানিক মাস তিনেক আগে নাইম গোপনে অন্যত্র বিয়ে করে। এক পর্যায়ে মোবাইলে ধারণ করা অশ্লিল ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়। গত ১৮ অক্টোবর সন্ধ্যা ৬ টার দিকে এলাকার বিভিন্ন লোকজন মোবাইলে ফোন করে তার মেয়ের ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পরার কথা জানায়। পরে তিনি ভিকটিমের কাছ থেকে ঘটনার বিস্তারিত জানতে পারেন। পরদিন ১৯ অক্টোবর দুপুরে নাইমের নিকটাত্মীয় ও সহযোগী একই এলাকার নজরুল ইসলাম ও সজীব মৃধার কাছে ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আইনের আশ্রয় নিলে তার মেয়েকে অপহরণসহ খুন করার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে শ্রীপুর থানায় তিনজনের নাম উল্লেখ করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অপর অভিযুক্তরা- একই গ্রামের মৃত কাদির মৃধার ছেলে নজরুল ইসলাম (৫০) এবং মজিবর মৃধার ছেলে সজীব মৃধা (২২)।

শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) গোলাম সারোয়ার অভিযোগে সত‍্যতা নিশ্চিত করে জানান, ভিকটিমের বাবার অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক আইন গত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..