1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৪৭ পূর্বাহ্ন

মনোহরদীর গোতাশিয়ায় নৌকার প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলে দলীয় ভাবমুর্তি নষ্ট; প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ২৩০ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবদক

নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলার গোতাশিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্ত এড. মতিউর রহমান তথ্য গোপন করে মনোনয়নপত্র দাখিল করায় নির্বাচন কমিশন তার  সেই মনোনয়নপত্র বাতিল করে। এতে দলীয় ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হয় বলে দাবী করেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ। এরই প্রতিবাদে এবং সাংগঠনিক ভাবে এড. মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে গোতাশিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ। বুধবার বিকেলে ইউনিয়নের বাগেরহাট বাজারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন গোতাশিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি মো. আলতাফ হোসেন।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্ত কোন প্রার্থীর মনোনয়ন নির্বাচন কমিশনার কর্তৃক যাচাই-বাছাইয়ে বাতিল হয়েছে এঘটনা এই প্রথম এবং তা শুধু মাত্র এড. মতিউর রহমানের ক্ষেত্রেই ঘটে। আর হয়েছে তার নিজের দোষের কারণে। অথচ এড. মতিউর রহমান একজন শিক্ষিত ব্যক্তি। তিনি সুপ্রিম কোর্টের একজন আইনজীবি। বিগত বছরের ২০ ডিসেম্বর উপ নির্বাচনে তিনি গোতাশিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি অন্যদের কাছ থেকে কর আদায় করেছে অথচ নিজে কর ফাঁকি দেন এটা তার কেমন বিচার। দলীয় কর্মকান্ডে তার তেমন কোন সম্পৃক্ততা না থাকলেও শুধু মাত্র ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে গোতাশিয়া ইউপির চেয়ারম্যান আব্দুল কাদিরের মৃত্যূর পর উপ নির্বাচনে মনোনয়ন প্রাপ্ত হয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। দলীয় কর্মকান্ডসহ এলাকাবাসীর সাথে সম্পৃক্ততা না থাকায় তার গ্রহন যোগ্যতাও নেই। তিনি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান কেন্দ্রে পাঠানো তিনজনের নামের তালিকার মধ্যে তার প্রথমে থাকায় চলতি ইউপি নির্বাচনে তাকে দলীয় মনোনয়ন প্রদান করেন। কিন্তু তিনি তার আয়করের তথ্য গোপন করে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। কিন্তু প্রয়োজনী কাগজপত্র মনোনয়ন পত্রের সাথে সংযুক্ত না করে তা গোপন করায় নির্বাচন কমিশন তার সেই মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করে তা বাতিল করেন। যার ফলে দেশের মানুষের কাছে গোতাশিয়া ইউনিয়নবাসীসহ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন হয়। আর এ জন্য দলীয় হাইকমান্ডের কাছে আমাদের প্রাণপ্রিয় নেতা মনোহরদী-বেলাববাসীর অহংকার শিল্প মন্ত্রী এড.নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনসহ গোতাশিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ পড়েছে  প্রশ্নের মুখে।

তিনি বলেন, তথ্য গোপন করায় তার মনোনয়নপত্র বাতিলের দায় তিনি নিজেই বহন করবেন। দল তার এ দায় নিতে পারেনা। তাই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দলীয় হাইকমান্ডের কাছে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহনের  জন্য আমরা আবেদন জানাচ্ছি। সাংবাদিক সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মনোহরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো. দেলোয়ার হোসেন পাভেল, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কাশেম,তাজুল ইসলাম,  ৪ নং ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি আ:হাই প্রধান  ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান প্রমূখ।

উল্লেখ্য নির্বাচনের তফসীল ঘোষণার পর গোতাশিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন। এদের মধ্যে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী এড. মতিউর রহমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল বরকত রবিন এবং ইসলামী আন্দোলনের হাতপাখা প্রতীকের মো. শাহাবুদ্দিন তাদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন।গত ২৯ নভেম্বর যাচাই বাছাই শেষে আয়করের তথ্য গোপন করায় নৌকা প্রতীকের এড. মতিউর রহমানের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। পরবর্তীতে নরসিংদী জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে আপিল আবেদন করা হলে রবিবার বিকেলে আপিল শুনানী শেষে পুনরায় তা না মঞ্জুর করা হয়। এদিকে সোমবার ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মো. শাহাবুদ্দিন তাঁর মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেওয়ায় আবুল বরকত রবিন একক প্রার্থী হিসেবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকালে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে এক গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..