1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:২২ পূর্বাহ্ন

গুরুদাসপুরে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় দুই ইউনিয়নে বাড়ি-ঘরসহ  অফিস ভাংচুর

এস,এম ইসাহক আলী রাজু
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৬ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৫০০ বার পঠিত

গুরুদাসপুর(নাটোর) প্রতিনিধি

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার দুইটি ইউনিয়নে নির্বাচন পরবর্তী সময়ে সহিংসতায় বিদ্রোহী প্রার্থীর কর্মী ও সমর্থকদের বাড়ি ঘর ও অফিস ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে নৌকা প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

হস্পতিবার (৬ জানুয়ারী) সকালে ধারাবারিষা ইউনিয়নের বিদ্রোহী প্রার্থী মোছাঃ হাজেদা বেগমের কর্মী দাদুয়া গ্রামের আলহাজ্ব আমিনুল হকের বাড়ি ঘর ভাংচুর ও বুধবার রাতে সমর্থক উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল আজিজের নির্বাচনী অস্থায়ী কার্যালয় ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে নৌকা প্রার্থীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

অপরদিকে মশিন্দা ইউনিয়নের নৌকার অফিস পুড়ানোর অভিযোগ উঠেছে বিদ্রোহী প্রার্থী মোঃ আব্দুল বারী ও তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

ধারাবারিষা ইউনিয়নের বিদ্রোহী প্রার্থী হাজেদা বেগম অভিযোগ করে বলেন, তার অনেক কর্মী সমর্থক বাড়ি থেকে নৌকা প্রার্থীর সমর্থকদের মারধরের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। ইতিমধ্যেই নৌকা প্রার্থীর সমর্থকরা বুধবার রাতে আমার সমর্থক উপজেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল আজিজের নির্বাচনী অস্থায়ী কার্যালয় ভাংচুরসহ কয়েকজন কর্মী ও সমর্থকের বাড়ি ঘর ভাংচুর করেছে।

ধারাবারিষা ইউনিয়ন পরিষদের নব-নির্বাচীত চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন এমন কোন ঘটনা ঘটেনি।

মশিন্দা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আ-লীগ মনোনীত প্রার্থী প্রভাষক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, নির্বাচনে জয়-পরাজয় থাকবেই। বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল বারী ও তার সমর্থক জালাল উদ্দিন তাদের জয় নিশ্চিত হওয়ার পর থেকেই তার কর্মী সমর্থকদের বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করেছে। তাছাড়াও বুধবার গভীর রাতে ইউনিয়নের তিনটি জায়গায় কাঠের তৈরি নৌকা ও নৌকার অফিস আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে। তিনি প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠ বিচারের দাবি জানান।

মশিন্দা ইউনিয়নের নব-নির্বাচীত চেয়ারম্যান আব্দুল বারী অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন তিনি বা তার কোন সমর্থক এমন কাজ করেনি।

গুরুদাসপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আব্দুল মতিন জানান, দুইটি ইউনিয়নেই সরেজমিন তদন্ত চলছে। জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..