1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  3. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  4. [email protected] : mahin : mahin khan
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০৪:৩৭ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীর চারঘাটে বেহাল সড়কে দুর্ভোগ: বিক্ষুব্ধ জনতার সড়ক অবরোধ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২২ মে, ২০২২
  • ৪৬ বার পঠিত

বেহাল সড়কে দুর্ভোগ: বিক্ষুব্ধ জনতার সড়ক অবরোধ

চারঘাট (রাজশাহী প্রতিনিধি) :

দ্রুত সংস্কারের দাবিতে পার্শ্ববর্তী চারঘাট-বাঘা সড়ক অবরোধ করেছেন এলাকাবাসী দ্রুত সংস্কারের দাবিতে পার্শ্ববর্তী চারঘাট-বাঘা সড়ক অবরোধ করেছেন এলাকাবাসী।

রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার ট্রাফিক মোড়-ক্যাডেট কলেজ সড়কটির সংস্কার কাজ শুরু হয়েছিল প্রায় দেড় বছর আগে। কাজ শুরুর আগে মানববন্ধন, সড়ক অবরোধ ও সংবাদ প্রকাশের পরে বর্তমানে সড়কটির অর্ধেক অংশের কাজ শেষ হয়েছে। কিন্তু সড়কটির বাকি অংশে চলাচল করতে গিয়ে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন সাধারণ জনগণ। প্রায়ই ঘটছে ছোট বড় দুর্ঘটনা।

শনিবার সকালেও কর্দমাক্ত ওই সড়কে দুর্ঘটনার শিকার হন দুই শিক্ষার্থী। এবার এ নিয়ে সড়কটির দ্রুত সংস্কারের দাবিতে পার্শ্ববর্তী চারঘাট-বাঘা সড়ক অবরোধ করেছেন এলাকাবাসী। এতে সাধারণ যাত্রীদের পড়তে হয় সীমাহীন দুর্ভোগে।

শনিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত বিক্ষুব্ধ জনতা চারঘাট-বাঘা আঞ্চলিক মহাসড়ক অবরোধ করেন। পরে চারঘাট পৌরসভার মেয়র একরামুল হক ঘটনাস্থলে গিয়ে সড়কটির সংস্কার কাজ দ্রুত শুরু করার প্রতিশ্রুতি দিলে যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়। দীর্ঘদিন ধরে এ সড়কের অচল অবস্থা না কাটায় এ অবরোধ করা হয়েছে বলে জানান ভুক্তভোগীরা।

উপজেলা প্রকৌশল বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ট্রাফিক মোড়-ক্যাডেট কলেজ দুই কিলোমিটার সড়কের সংস্কার ব্যয় ধরা হয় ১ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। কাজ শুরু হওয়ার কথা ছিল ২০২০ সালের ১৪ ডিসেম্বর এবং কাজ শেষ করার কথা ছিল ২০২১ সালের ১৩ এপ্রিলে। কাজটি বাস্তবায়ন করছে ঠিকাদার সরোয়ার জাহান লালন। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের পরে আরো এক বছর অতিবাহিত হলেও রাস্তাটি চলাচলের উপযোগী হয়নি। রাস্তায় বাঁশ ও টেবিল ফেলে অবরোধ করেন এলাকাবাসী রাস্তায় বাঁশ ও টেবিল ফেলে অবরোধ করেন এলাকাবাসী।

জানা গেছে, চারঘাট উপজেলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সড়ক পৌরসভার ট্রাফিক মোড় থেকে ক্যাডেট কলেজ সড়ক। রাজশাহী ক্যাডেট কলেজ, চারঘাট নৌ পুলিশ ফাঁড়ি ও বিজিবি ক্যাম্পসহ একাধিক স্কুল-কলেজ এই সড়কের পাশে অবস্থিত। অথচ প্রায় দুই বছরের অধিক সময়ে ধরে গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী অবস্থায় রয়েছে। এ সড়কে চলতে গিয়ে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। দুর্ভোগের সঙ্গে যাত্রীদের গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত ভাড়া। এই নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দা, ব্যবসায়ী, গাড়ি চালক ও যাত্রীরা তাঁদের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেন।

কলেজ শিক্ষার্থী আমিনুল ইসলাম বলেন, সড়কের কাজ যথাসময়ে শেষ হয়নি অথচ এই সড়কে প্রতিদিন কয়েকশ বালুবাহী ১০ চাকার ট্রাক চলাচল করছে। তাতে সড়কটি পার হওয়া দুষ্কর হয়ে পড়েছে। দ্রুত সড়কটির সংস্কার কাজ শেষে করে দুর্ভোগ থেকে এলাকাবাসীকে মুক্তি দেওয়া হোক।

স্থানীয় অটোরিকশার চালক খাইরুল ইসলাম জানান, চলাচল করতে গিয়ে প্রায় সময়ই গাড়ির চাকা গর্তে আটকে যায়। অনেক সময় গাড়ি উল্টে দুর্ঘটনা ঘটে। যত দিন অবৈধ ১০ চাকার গাড়ি চলাচল বন্ধ না হবে রাস্তা সংস্কার করেও টিকবে না। এ জন্য বাধ্য হয়ে তাঁরা সড়ক অবরোধ করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওই সড়কের দায়িত্বে থাকা উপসহকারী প্রকৌশলী শফিকুল হাসান বলেন, ট্রাফিক মোড়-ক্যাডেট কলেজ সড়কের অর্ধেকের বেশি অংশে পিচ ঢালা সড়ক করা হয়েছে। বাকি অর্ধেক অংশে বালুবাহী ট্রাক চলাচল করে, সেখানে পিচ টিকবে না। এ জন্য প্রাথমিকভাবে হেরিং বন্ড রাস্তা করার জন্য অনুমোদন চাওয়া হয়েছে। তবে অনুমোদন না পাওয়ায় কাজ এখনো শুরু করা সম্ভব হয়নি।

সড়ক অবরোধকারীদের সঙ্গে কথা বলতে আসা পৌর মেয়র একরামুল হক বলেন, স্থানীয় জনগণ অনেক দিন ধরেই ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। এ জন্য তাঁরা কিছুটা সময় গাড়ি চলাচল বন্ধ রেখেছিল। স্থানীয় জনগণ ও প্রকৌশল বিভাগের সঙ্গে কথা বলে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে। খুব দ্রুতই ওই সড়কের সংস্কার কাজ শুরু হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..