1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:১০ পূর্বাহ্ন

নরসিংদীতে হয়ে গেল ৯৫-৯৭ এর উদ্যোগে শীত উৎসব

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৬০ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

পিঠাপুলির দেশ বাংলাদেশ। বাঙালির ইতিহাস-ঐতিহ্যর সাথে পিঠাপুলি অত্যন্ত নিবিড়ভাবে জড়িত। ভাতের পরে এক চেটিয়া বাঙালির খাদ্য সংস্কৃতিতে সবচেয়ে বেশি অভ্যস্ত পিঠাপুলিতে।

তবে পিঠা নিত্যদিনের খাবার না হলেও শীতকালে বাঙালির ঘরে ঘরে পিঠার ব্যাপক কদর রয়েছে। আর সে পিঠা যদি হয় কোন উৎসব আয়োজনের তা হলে আনন্দের কোন কমতিই নেই।

তাই কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছেন, এসেছে শীত গাহিতে গীত বসন্তেরই জয়- কবিগুরু সত্যিই বলেছেন। শীত এখন আর ভয় নয়, শীতকাল মানেই আনন্দ-উৎসব গান গাওয়া দিন।

তাই শীতের আনন্দকে বন্ধু মহলে মাঝে ভাগাভাগি করতে সামাজিত যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক গ্রুপ ৯৫-৯৭ নরসিংদীর উদ্যোগে প্রতি বছরের ন্যায়ে এবারও উৎসবমুখর পরিবেশে শিবপুর উপজেলার সোনাইমুড়ি বিনোদন পার্কে আয়োজন করেছিলেন শীত উৎসব নামে এক ব্যতিক্রম অনুষ্ঠান। আর এতে অংশ নেই দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে প্রায় ১২ শতাধিক ৯৫-৯৭ ব্যাচের বন্ধুরা।

পূর্ব নির্ধারিত রেজিষ্ট্রেশন ও সময় সূচি অনুসারে শুক্রবার (০৬ জানুয়ারি) রেজিষ্ট্রেশনকৃত ৯৫-৯৭ ব্যাচের বন্ধুরা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে থেকে সকাল ৭টার থেকে হাজির হতে থাকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ের পাশে শিবপুর উপজেলার বাঘাব ইউনিয়নের সোনাইমুড়ি পার্কে।

আর এ উৎসবকে ঘিরে পার্কের দক্ষিণপাশের উচু পাহাড়ের টিলাকে সাজানো হয়েছিল বণিল সাজে। পাহাড়ের প্রতিটি গাছে গাছে দেয়া হয়েছিল অংশ গ্রহণকারীদের বন্ধুদের ছবি সম্বলিত বিল বোর্ড। স্থাপন করা হয়েছিল বিশ্রাম কক্ষ ও বিগত দিনের ৯৫-৯৭ ব্যাচের যে সকল বন্ধুরা মৃত্যুর বরণ করেছেন তাদের স্মরণে শ্রদ্ধাজ্ঞলি বোর্ড।

উৎসবে প্রথম পর্বে অংশ গ্রহণকারী সকলের জন্য আয়োজকদের পক্ষথেকে ছিল খেজুরের রস, ভাপা পিঠা, চিতন পিঠা, পাটিসাপটা পিঠা, ফুল পিঠা। ফলের মধ্যে থাকে পেয়ারা, বড়ই ও পাকা কলা। দুপুরের খাবারে ছিল ভুনা খিচুরি সাথে হাঁসের মাংস, মুরগির বোস্ট, বেগুনি, চাটনি ও কোল্ড ড্রিংকস।

পাহাড়ের পশ্চিম পাশে স্থাপন করা স্টেইজে সকাল থেকেই আয়োজন ছিল উন্মুক্ত মিউজিকে যার যার ইচ্ছা মতো পরিবেশনা গান, কবিতা পাঠ ও অভিনয়।
দুপুরে খাবারের বিরতির পর শুরু হয় নাচ ও গান। এতে মাথিয়ে তুলে পাহাড়ি পরিবেশ। বন্ধুরা যেন কিছুক্ষণের জন্য ফিরে যায় তাদের সেই শৈশবে।

বিকালে এ মিউজিকের তালে তালে সাথে ছিল, সকল বন্ধুদের জন্য গ্রাম বাংলার মুড়ির মোয়া, বাতাসা, কদমা,কটকটি, নিমকি। আর এ সব বিতরণে ব্যস্ত থাকে ৯৫-৯৭ ব্যাচের বন্ধু নরসিংদী জজ কোর্টের আইনজীবী মোশারফ হোসেন।

শীত উৎসব আয়োজনে ছিলেন ৯৫-৯৭ নরসিংদীর ফেসবুক গ্রুপের এডমিন, ৯৫৯-৭ ব্যাচের বন্ধু আরবাতুজ্জামান প্রলয়।
সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলে, সাখাওয়াত হোসেন খাঁন বাবু, জিয়াউল হক সবুজ, মোস্তাফিজুর দিপু, মশফিকুর মনি, সাইদুর রহমান রবিন ও আলমগীরসহ আরও অনেকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..