1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:৫২ পূর্বাহ্ন

কুলিয়ারচরে কৃষক হত্যা মামলার দুই আসামী আটক নিয়ে পুলিশ সুপারের প্রেস ব্রফিং

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৩৫ বার পঠিত

মুহাম্মদ কাইসার হামিদ, কুলিয়ারচর (কিশোরগঞ্জ)

কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে কৃষক আবু বাক্কার (৫৭) হত্যা মামলার প্রধান দুই আসামী কিশোর বাবুল ও রিসাদকে গ্রেফতার করা নিয়ে প্রেস ব্রিফিং করেছেন কিশোরগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ পিপিএম (বার)।

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ অফিস কক্ষে অনুষ্ঠিত প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ পিপিএম (বার) কৃষক আবু বাক্কার হত্যা মামলার দুই আসামী কিশোর বাবুল ও রিশাদকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আজ ২৩ জানুয়ারি সোমবার দুপুরে কুলিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা থানার এস.আই সাইফুল্লাহ ও এস.আই মাহবুবুর রহমানকে সাথে নিয়ে পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলার চান্দেরচর গ্রাম থেকে আসামী কিশোর বাবুলকে গ্রেফতার করে। অপরদিকে আজ সোমবার দুপুরে কুলিয়ারচর থানার সেকেন্ড অফিসার এস.আই দেব দুলাল মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস.আই রাসেল মিয়াকে সাথে নিয়ে এক দল পুলিশ অভিযান চালিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থেকে আসামী কিশোর রিশাদকে গ্রেফতার করেছে। তিনি প্রেস ব্রিফিংয়ে আরো বলেন, স্থানীয় বীর কাশিমনগর ফেদাউল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা হাছিনা বেগম (৪৮) অসুস্থ থাকায় তাহাকে দেখার জন্য গত ১৭ জানুয়ারি ওই বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা তাহার বাড়িতে আসিলে উপজেলার মুজরাই গ্রামের বাবুল, রাশেদুল আলম রিসাদ ও পারভেজ মেয়েদেরকে উত্ত্যক্ত করে। এ ঘটনায় হাছিনা বেগমের চাচাতো ঝা আনিছা বেগম (৫৫) গত ১৯ জানুয়ারি উল্লেখিত আসামীর অভিভাবকদের জানাইলে আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওই দিন রাত ৮টার দিকে আনিছা বেগমের বাড়িতে আসিয়া আনিছা বেগমকে গালি গালাজ করিতে থাকে। ওই সময় আনিছা বেগমের স্বামী কৃষক আবু বাক্কার স্থানীয় এক মসজিদে এশার নামজ আদায় শেষে বাড়ি আসিয়া ঘটনা দেখিয়া কি হইয়াছে জিজ্ঞেস করিলে আসামীরা ক্ষিপ্ত হয়ে কৃষক আবু বাক্কারকে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মারিলে আবু বাক্কার মাটিতে লুটে পরে। পরে তার স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এসময় তিনি আসামীদের কিশোর গ্যাং এর সদস্য হিসেবে আক্ষায়িত করেন।

জানা যায়, কৃষক আবু বাক্কারকে পিটিয়ে হত্যার বিচার দাবীতে গত ২২ জানুয়ারি রোববার নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে উপজেলার মুজরাই মোরে ডুমরাকান্দা-জাফরাবাদ রাস্তায় কৃষক আবু বাক্কার হত্যার তীব্র নিন্দা জানিয়ে হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও ফাঁসির দাবীতে একটি মানববন্ধন করার পর দুই আসামীকে আটক করে কুলিয়ারচর থানা পুলিশ।

উল্লেখ্য, স্কুল ছাত্রীদের ইভটিজিংয়ের বিচার দেওয়ায় গত ১৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার রামদী ইউনিয়নের মুজরাই মধ্যপাড়া গ্রামে আব্দুস সোবহানের ছেলে কৃষক আবু বাক্কার ইভটিজারদের হাতে খুন হয়।

এঘটনায় নিহতের ছেলে আয়ুর্বেদীক ডাক্তার মো. বায়েজিদ মিয়া (৩০) বাদী হয়ে গত ২০ জানুয়ারী মো. বাবুল মিয়া, মো. রাশেদুল আলম রিসাদ, মো. পারভেজ মিয়া ও মো. আলম মিয়ার নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত নামা ৩/৪ জনের নামে কুলিয়ারচর থানায় একটি মামলা দায়ে.র করেন। মামলা নং- ১২।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..