1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০১:৪৯ অপরাহ্ন

অসহায় মানুষের জন্য ‘মানবতার বাজার’ খুলে বসেছে শাহারিয়ার সামস্ কেনেডি

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২০
  • ৬৯ বার পঠিত

নরসিংদী প্রতিনিধি:
নরসিংদীতে করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ব্যক্তিগত উদ্যোগে বিনামূল্যে এলাকার কর্মহীন অসহায় ও নিন্ম আয়ের মানুষের মুখে একটু হাসি ফোঁটানোর জন্য ‘মানবতার বাজার’ খুলে বসেছে ।

বৃহস্পতিবার সকালে নরসিংদী শহরের বৌয়াকুড় এলাকার নদীর পাড়ে সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত উদ্যোগে বিনামূল্যে এলাকার অসহায় ও নিন্ম আয়ের মানুষের মাঝে খাদ্যদ্রব্য পৌছে দিতে এই মানবতার বাজারের আয়োজন করেন, চাতক ব্যান্ড এর ভোকাল ও সাবেক সাংসদ শামসুদ্দিন আহমেদ এছাক এর ছেলে শাহরিয়ার সামস্ কেনেডি। সামাজিক দূরত্ব মেনে একে একে সেখানে আসছেন বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার নারী-পুরুষ। এলাকার দেড়শত পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হয় এসব খাদ্যদ্রব্য। তবে বিনিময়ে দিতে হচ্ছে না কোনো টাকা। তিনি নিজে হাতে ২ কেজি চাল ,১ কেজি ডাল, আধা কেজি তেল, আধা কেজি লবন. ডিম ও সাবান থেকে শুরু করে শাক. সবজিসহ ১২ রকমের খাদ্যদ্রব্য বিতরণ করেন। মানবতার বাজার থেকে পণ্য নেয়া এক ব্যক্তি বলেন, এমন একটি উদ্যোগ প্রশংসনীয়। আমাদের মতো কিছু লোক আছে বর্তমানে কর্মহীন। কিন্তু কারো কাছে সাহায্যের জন্য হাত পাততে পারি না; এমন অনেকেই এখান থেকে বাজার নিয়েছে।

জানতে চাইলে এক দিনমজুর বলেন, আজকে এখান থেকে যে বাজার নিয়েছি তা দিয়ে আমার চার-পাঁচদিন চলে যাবে। আমরা চাই এমন উদ্যোগ সবাই যাতে নেয়। চাতক ব্যান্ডে’র ভোকাল শাহারিয়ার সামস্ কেনেডি বলেন, গরিব ও নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারগুলোকে বাছাই করে তাদের একটি করে রেশন কার্ড দেওয়া হয়েছে। ওই কার্ডের মাধ্যমে এসব পরিবার এই বাজার থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণে নিত্যপণ্য বিনা পয়সায় নিতে পারবে। সুবিধাভোগীদের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি করা হবে এবং পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। ‘একটি পরিবারে যা কিছু প্রয়োজন, তার বেশির ভাগ পণ্যই আমরা এই বাজারে রেখেছি। আজ প্রথম দিনে যেখানে চাল, ডাল, তেল, লবন , সাবান থেকে শুরু করে শাক. সবজিসহ ১২রকমের খাদ্যদ্রব্য ইত্যাদি দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরোও বলেন, বাবার ঐতিহ্য ধরে রাখার ধারাবাহিকতায় এই আয়োজন করা হয়েছে। নিন্ম আয়ের মানুষদের নিয়ে আরো কিছু পরিকল্পনা আছে। এসময় তিনি প্রত্যেক এলাকার ব্যবসায়ী ও শিল্পপতিদের তাদের নিজ নিজ এলাকার নিন্ম আয়ের মানুষদের মাঝে সহযোগিতার হাত বাড়ানোর আহবান জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..