1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  3. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  4. [email protected] : mahin : mahin khan
বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০২:৫১ পূর্বাহ্ন

এ কোন নিষ্ঠুরতা

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৭ মে, ২০২০
  • ৬৫ বার পঠিত
এভাবেই অসহায়ের মত কেটে ফেলা কলা গাছগুলো ধরে নিরবে চোখে জল ফেলছে কাউছার মিয়া

রায়পুরা প্রতিনিধি

এ কোন নিষ্ঠুরতা। মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় কলাক্ষেতের প্রায় দুই শতাধিক কলাগাছ কেটে ফেলে পুরো ক্ষেত উপড়ে দিয়েছে মাদকসেবিরা। এমন নিষ্ঠুর ঘটনার খবর পাওয়া গেছে নরসিংদীর রায়পুরায়। বুধবার গভীর রাতে উপজেলার আমিরগঞ্জ ইউনিয়নের করিমগঞ্জ গ্রামে এঘটনা ঘটে। ক্ষেত মালিক কাউছার মিয়ার অভিযোগ,আমিরগঞ্জ এলাকার চিহ্নিত মাদকব্যবসায়ী এবং মাদকসেবি আখি ও তার বাহিনী এ ঘটনা ঘটিয়েছেন।

জানা যায়, আমিরগঞ্জ এলাকার মৃত নূরুদ্দিন মিয়ার ছেলে মো. দিদারুল আলম আখি ভুইয়া (৫০) এলাকার একজন চিহ্নিত মাদকব্যবসায়ী ও মাদকসেবি। সে তার দলবল নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে প্রতিরাতে পার্শ্ববর্তী করিমগঞ্জ গ্রামের কাউছার মিয়ার কলা ক্ষেতে মাদক সেবন করে আসছে। কাউছার মিয়া তাকে বার বার নিষেদ করলেও কর্ণপাত করেনি আখি তার দলবল।মঙ্গলবার রাতে কাউছার মিয়া এলাকাবাসীর সহয়তা মাদকসেবনে বাধা প্রদান করে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে আখি তার দলবল বুধবার গভীর রাতে ১৮ শতাংশ জমিতে লাগানো প্রায় ২ শ কলা গাছ কেটে উপড়ে ফেলে দেয়।

জমির মালিক কাউছার মিয়া জানান, প্রায় বছর খানেক ধরে রাতের বেলায় আখি তার দলবল নিয়ে্ ওই কলক্ষেতে মাদক সেবন ও বিভিন্ন অসামাজিক কাজ করে আসছে।বছরখানেক আগেও মাদকসেবনে বাধা দেয়ার কারণে এভাবেই গাছ কেটে ফেলেছিল। সে সময় এলাকার পঞ্চায়েতের মাধ্যমে ঘটনার মিমাংসা করা হয়। এর কিছুদিন পর থেকেই তারা পুনরায় সেখানে মাদকসেবন শুরু করে।বছরান্তে একই ঘটনার পুরনাবৃত্তি হওয়ায় কাউছার মিয়া প্রায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন।

কাউসার মিয়ার বড় ভাই কুতুবুদ্দিন বলেন, আখি বাহিনীর এটা দ্বিতীয় বারের মত  ঘটনা। গতবছরও তারা এঘটনা ঘটিয়েছে। কেটে ফেলা ২০০ কলাগাছের মধ্যে প্রায় অধিকাংশ গাছেই কলার বাধা ধরেছিল।শুধু কলাগাছই নয় জমির চারপাশে প্রায় শতাধিক অন্যান্য ফলগাছের চারা লাগানো ছিল, সেগুলোও কেটে ফেলেছে তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন গ্রামবাসীর জানায় আখি মাদক ব্যবসার সাথেও জরিত। তার কারণে এলাকার যুবক সমাজ বিপদগামী হচ্ছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো: মোস্তফা ভূইয়া ও সাবেক সদস্য আঃ রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ইউপি সদস্য মো: মোস্তফা ভূইয়া এ ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে এ প্রতিবেদককে জানান, বিষয়টি প্রথমে গ্রাম্য পঞ্চায়েতের মাধ্যমে মিমাংসার চেষ্টা করা হবে যদি সমাধান না হয় তখন আইনের সাহায্য নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..