1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  3. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  4. [email protected] : mahin : mahin khan
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:৩০ অপরাহ্ন

বাজেটে যেসব পণ্যের দাম বাড়ছে-কমছে

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১১ জুন, ২০২০
  • ৭১ বার পঠিত
প্রতিকি ছবি

ডেস্ক রির্পোট

সংসদে চলতি অর্থবছরের প্রস্তাবিত ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট পেশ করা হয়েছে। ‘অর্থনৈতিক উত্তরণ ও ভবিষ্যৎ পথপরিক্রমা’ শিরোনামে ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য বাজেট উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ৩টায় জাতীয় সংসদে নতুন অর্থবছরের বাজেট পেশ করেন।

প্রস্তাবিত বাজেটে যেসব পণ্যের দাম বাড়ছে:

এবারের বাজেটে যেসব পণ্যের দাম বাড়ার কথা রয়েছে সেগুলো হলো-

১. মোবাইল ফোনে কথা বলার ওপর কর বাড়ছে।

২. চার্টার্ড বিমান ও হেলিকপ্টার ভাড়ার ওপর সম্পূরক শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে ৩০ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে আকাশ পথে খরচ বাড়বে।

৩. সিরামিকের সিঙ্ক বেসিনের ওপর ১০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা হয়েছে। মধুর বাল্ক আমদানি শুল্ক বাড়ছে। বিদেশি মধুর দাম বাড়বে।

৪. পেঁয়াজ আমদানিতে কিছুটা শুল্ক আরোপ হবে।

৫. আসবাবপত্র কেনায় মূসক বেড়েছে। ৫ থেকে সাড়ে ৭ শতাংশ করা হয়েছে।

৬. শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত লঞ্চের টিকিট খরচ বাড়বে। আগে ৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর ছিল, নতুন অর্থবছরে তা বাড়িয়ে ১০ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

৬. কার ও জিপ রেজিস্ট্রেশনসহ বিআরটিএ প্রদত্ত অন্যান্য সার্ভিস ফির ওপর সম্পূরক শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

৭. প্রসাধনসামগ্রীর ওপর সম্পূরক শুল্ক ৫ থেকে ১০ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

এছাড়াও শিল্প লবণ, দুধ ও দুগ্ধজাত পণ্য মৎস্য, সিগারেট, বিড়ি, জর্দা পোল্ট্রি ও ডেইরি শিল্পের খাদ্যের দাম বাড়ার প্রস্তাব করা হয়েছে এবারের উত্থাপিত বাজেটে।

প্রস্তাবিত বাজেটে যেসব পণ্যের দাম কমছে:

এবারের বাজেটে যেসব পণ্যের দাম কমার কথা রয়েছে সেগুলো হলো-

১. রেফ্রিজারেটর ও এসির কাঁচামাল আমদানিতে বিদ্যমান রেয়াতি সুবিধা বাড়ানো হচ্ছে।

২. এলপিজি সিলিন্ডারের দাম কমতে পারে।

৩. স্বর্ণ আমদানিতে মূসক অব্যাহতি।

৪. দেশীয় শর্ষের তেলে মূল্য সংযোজন কর (মূসক) অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। ফলে এটার দাম কমবে।

৫. স্যানিটারি ন্যাপকিন ও ডায়াপারের কাঁচামাল আমদানিতে রেয়াতি সুবিধা বাড়ানো হবে।

৬. ইস্পাত শিল্পের রিফ্রাক্টরি সিমেন্টের ওপর শুল্ক কমানো হবে।

৭. অটোমোবাইল ফ্রিজ এসির ওপর মূসক অব্যাহতি।

৮. ডিটারজেন্টের কাঁচামালের ওপর শুল্ক কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।

এছাড়া, প্রস্তাবিত বাজেটে কৃষি যন্ত্রপাতি, পাওয়ার রিপার, রোটারি টিলার, কম্পাইন্ড হার্ভেস্টার ও পাওয়ার টিলার, ফেইস মাস্ক, পিপিই, করোনা চিকিৎসায় ব্যবহৃত ওষুধ, প্লাষ্টিক পণ্য ও দেশিয় কাগজ দাম কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।।

 

জোনাকি টেলিভিশন/এসএইচআর/১১-০৬-২০ইং

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..