1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৫:২৯ পূর্বাহ্ন

শিবপুরে ব্যাংক কর্মকর্তাকে মিথ্যা মামলায় ফাসানোর চেষ্ঠা; সংবাদ প্রকাশে প্রতিবাদ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৮ জুলাই, ২০২০
  • ৬৭ বার পঠিত
শিবপুর মডেল থানা

নরসিংদী প্রতিনিধি

নরসিংদী শিবপুরে জুয়েল রানা নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তা ও বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রসহ একাধিক ব্যাক্তির নামে পুকুর থেকে মাছ লুট ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার জয়নগর ইউনিয়নের দড়িপুড়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে এই বিষয়ে জয়নাল আবেদীন শিবপুর মডেল থানায় ছয় জননের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনকে অভিযুক্ত করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগের ভিত্তি সরজমিনে দড়িপুড়া গ্রামে গেলে জানা যায়, ব্যাংক কর্মকর্তা জুয়েল রানাদের দখলে থাকা পুকুরের পাশের একটি জমি নিয়ে খাদ্য গুদাম রক্ষক মনির হোসেনের দীর্ঘ দিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। এই বিষয়ে স্থানীয় ভাবে বেশ কয়েকবার শালিস-দরবার হয়েছে। এমনই এক শালিশে জমির প্রকৃত মালিকানা সনাক্তকরণে স্থানীয় চেয়ারম্যান নাদিম সরকার সার্ভেয়ার দিয়ে জমি মাপার নির্দেশনা দেয়। চেয়ারম্যানের নির্দেশে অভিজ্ঞ সার্ভেয়ার দিয়ে নিয়ে জমি মাপতে গেলে জমির পাশের পুকুর থেকে মাছ লুট ও প্রাণনাশের হুমকি প্রদানের অভিযোগ উঠে।

এই বিষয়ে ওই এলাকার একাধিক লোকের সাথে কথা বলে যানা যায়, জমি মাপতে গিয়ে দুই জন লোক ফিতা নিয়ে পুকুরে নামে। এসময় পুকুরের মাছের কোন ক্ষয়ক্ষতি বা মাছ লুটের ঘটনা ঘটেনি বা কাউকে কোন রকম হুমকি-দমকি দেওয়া হয়নি।

এলাকাবাসি সূত্রে আরও জানা যায়, মনির হোসেন খাদ্য গুদাম রক্ষক হিসেবে কর্মরত। তিনি একজন মামলাবাজ লোক। সরকারি চাকুরি সুবাদে কখনো কেউ তার কোন অন্যায়ের প্রতিবাদ করলে তিনি তাদেরকে মামলার ভয় দেখিয়ে ঘায়েল করার চেষ্ঠা করেন।

পুকুরের মাছ লুট ও প্রাণনাশের হুমকি প্রদানের অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যাংক কর্মকর্তা জুয়েল রানা ঘটনার দিন তার নিজ কর্মস্থলে দ্বায়িত্বরত অবস্থায় ছিল বলে দাবি করেন।

ব্যাংক কর্মকর্তা জুয়েল রানা বলেন, ‘আমাদের ক্রয়কৃত ৪৫ শতাংশ জমি দখল আমরা দীর্ঘ দিন যাবত পাচ্ছি না। এলাকার সবাই তা অবগত, ঘটনার সময় আমি আমার জনতা ব্যাংক হাতিরদীয়া শাখায় দ্বায়িত্বরত ছিলাম অথচ আমার নামে থানায় অভিযোগ এবং বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকার এই বিষয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়, যা আমার সুনাম ও সামাজিক ভাবে মানক্ষূন্ন হয়। আমি এর তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি আইন প্রয়োগকারী সংস্থা যেন সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে এই অভিযোগের সত্যতা যাচাই পূর্বক প্রতিবেদন দেন তার জন্য প্রশাসনে কর্তাব্যক্তিদের প্রতি জোড় দাবী জানাচ্ছি।

জোনাকী টেলিভিশন/এসএইচআর/৮ জুলাই ২০২০ইং

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..