1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  3. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  4. [email protected] : mahin : mahin khan
শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০১:৩০ অপরাহ্ন

নরসিংদীতে জ্বীনের বাদশাকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫০ বার পঠিত

মো. মোস্তফা খান, নরসিংদী:

নরসিংদীতে প্রতারক জ্বীনের বাদশাসহ ২জনকে ৯ নভেম্বর গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা শাখার পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত আসামী দ্বয় হলো: নরসিংদীর মনোহরদীর বীরগাঁও এলাকার মৃত- ইসমাইল মিয়ার ছেলে সোনাম উদ্দিন (৮০) ও পশ্চিম দত্তপাড়ার আসাদ মিয়ার ছেলে সাদিকুর রহমান @ সিদ্দিক (৪৪)।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি মারফত জানা যায়, গত ০৩/১০/২০২০ তারিখ জনৈক ফারুক আহমেদ নরসিংদী সদরের দত্তপাড়া সাকিনস্থ সিএন্ডবি রোডে চায়ের দোকানে বসে চা পান করাকালে পাশে বসে থাকা আসামী প্রতারক সাদিকুর রহমান @ সিদ্দিক বলে উঠে ১৪ বছর মামলা চালাইয়া জায়গার কোন হদিস পাইলাম না, সেই মামলার কাগজ পাইলাম সোনাম উদ্দিন হুজুরের কাছে গিয়ে। জনৈক ব্যক্তির জমিজমা নিয়ে বিরোধ ছিল। জনৈক ব্যক্তি প্রতারকের কথা বিশ্বাস করে এবং তার জমি নিয়া বিরোধ থাকায় প্রতারকের সাথে কথা বলে। প্রতারক সিদ্দিক একটা মোবাইল নম্বরে হুজুরের সাথে কথা বলায় এবং হুজুর সরাসরি যেতে বলে। ০৪/১০/২০২০ খ্রিঃ তারিখ জনৈক ফারুক আহমেদ প্রতারক সিদ্দিকের সাথে মনোহরদীর বীরগাঁও এলাকায় জ্বীনের বাদশা সোনাম উদ্দিনের কাছে যায়। প্রতারক জ্বীনের বাদশা সোনাম উদ্দিন আলখাল্লা পোশাক পড়ে জ্বীন সেজে কন্ঠ নকল করে কথা বলে এবং জনৈক ব্যক্তির মনে বিশ্বাস স্থাপন করায়। জমি ও ভালো চাকরী পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে বিভিন্ন ধাপে জনৈক ব্যক্তির নিকট হতে ৩,৪০,৪৯০/= টাকা হাতিয়ে নেয়। বেশ কিছুদিন অতিবাহিত হওয়ার পর কাজ না হওয়ায় জনৈক ব্যক্তির মনে সন্দেহ হয়।

এরই প্রেক্ষিতে জনৈক ব্যক্তি ০৮/১১/২০২০ খ্রিঃ পুলিশ সুপার নরসিংদীর কার্যালয়ে মৌখিক অভিযোগ করলে নরসিংদী জেলা গোয়েন্দা শাখার এসআই তাপস কান্তি রায় তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় আসামীদের অবস্থান সনাক্ত করেন এবং বাদীসহ অভিযান চালিয়ে ০৯/১১/২০২০ খ্রিঃ তারিখ দিবাগত রাত ০০:৩০ ঘটিকায় মনোহরদী থানাধীন বীরগাঁও সাকিন হতে প্রতারক জ্বীনের বাদশা সোনাম উদ্দিন ও সাদিকুর রহমান @ সিদ্দিকদ্বয়দের গ্রেফতার করে। প্রতারকদের নিকট হতে নগদ টাকা, আংটি, পাথর, আলখাল্লা পোশাক উদ্দার করা হয়।

নরসিংদী জেলা পুলিশের মিডিয়া সমন্বয়ক ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ইন্সপেক্টর রুপন কুমার সরকার পিপিএম জানান, বেশ কিছুদিন যাবত পুলিশের নিকট অভিযোগ আসতেছিল যে, একটা সংঘবদ্ধ প্রতারকচক্র জ্বীনের বাদশা সেজে প্রতারণা করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।
তাদের কাছ থেকে নগদ ৬০,০০০/= (ষাট হাজার) টাকা, (২) জ্বীনের বাদশা সাজার আলখাল্লা পোশাক, (৩) ০৩ (তিন) টা আকিদ পাথর, (৪) একটি পাথরযুক্ত আংটি উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় মনোহরদী থানায় নিয়মিত মামলা রুজু হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..