1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  3. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  4. [email protected] : mahin : mahin khan
শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৩:০৬ পূর্বাহ্ন

নরসিংদীতে আলোকিত ও মানবিক বাংলাদেশ গঠনে বই পড়ার প্রয়োজনীয়তা শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ৬৩ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নরসিংদী সাহিত্য একাডেমী কর্তৃক আয়োজিত ও নরসিংদী পাবলিক লাইব্রেরির উদ্যোগে আলোকিত ও মানবিক বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে বই পড়ার প্রয়োজনীয়তা শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠক বৃহস্পতিবার (১৯ নভেম্বর-২০) নরসিংদীস্থ্য লাইব্রেরী প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গোলটেবিল বৈঠকে অংশ গ্রহন করেন বুটেক্স প্রফেসর ড. আবু মোহাম্মদ আজমল মোর্শেদ, নরসিংদী প্রেসিডেন্সি কলেজের অধ্যক্ষ আহমাদুর রহমান, নরসিংদী ইউনাইটেড কলেজের অধ্যক্ষ হাসিবুর রহমান অনিক, সমাজ সেবক ও সংগঠক আবদুল হালিম, চিনিশপুর পাবলিক লাইব্রেরির প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম, নরসিংদী প্রেসিডেন্সি কলেজের কো-অর্ডিনেটর সৈয়দ মাহবুব তামিম, জোনাকী টেলিভিশনের যুগ্ম বার্তা প্রধান তুহিন ভূইয়া, ব্রাহ্মন্দী কেকেএম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মো. সাইফুল ইসলাম,

লেখক মু. জসিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় সূচনা বক্তব্য রাখেন নরসিংদী পাবলিক লাইব্রেরির সভাপতি ড. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন।
আলোচনায় যেসব বিষয়াদী উঠে এসেছে সেগুলো হলো:

(১) : আমাদের দেশে অনেক মাদ্রাসা, মক্তব, এতিমখানা আছে সেখানে অবশ্য পাঠাগার থাকা দরকার। পাঠাগার থাকলেই তারা ভাল বই পড়ে জ্ঞান অর্জন করে নিজেদেরকে স্বাবলম্বী করতে পারবে।
(২) দেশ কাল, ন্যায়- অন্যায় সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করতে পারবে।
(৩) আমাদের দেশে রেলস্টেশন, বাস স্ট্যান্ড, লঞ্চ ঘাটে ও বিমান বন্দরে সময় মত বাহন আসে না। যাত্রীরা অনেক সময় বসে বসে অনর্থক সময় নষ্ট করে। এসব পাবলিক প্লেসে লাইব্রেরি থাকলে যাত্রীরা সুন্দর ও ফলপ্রসূভাবে সময় কাটাতে পারে ও জ্ঞান অর্জন করতে পারে।
(৪) তাছাড়া সেলুন, হাসপাতাল ও হোটেল এ লাইব্রেরি থাকা জরুরী । এবিষয়ে আমাদের নতুন করে ভাবনার আছে।
(৫) আমাদের দেশের লোকজন যে পরিমাণ অবসর সময় কাটায় পৃথিবীর অন্য কোন দেশে এত অবসর সময় কাটায় না। বর্তমানে অফিস আদালতে, বাস স্ট্যান্ড, রেলস্টেশন, বিমান বন্দর, বাসায় বসে শুধু মোবাইলে ফেসবুক নিয়ে সময় নষ্ট করছে। এ সময় বই পড়ে কাটলে জাতির ভবিষ্যৎ আরো অনেক বেশি সুন্দর হবে। বই পড়া হতে পারে সবচেয়ে বড় বিনোদন। ক্লাব , সংস্থার অনুমতির ক্ষেত্রে লাইব্রেরি বাধ্যতামূলক।সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে লাইব্রেরিগুলো সচল বাধ্যতামূলক করা ।
(৬) বেসরকারি লাইব্রেরিতে একজন করে লাইব্রেরিয়ান দেওয়া । লাইব্রেরির আলাদা মন্ত্রনালয় করা । পাঠাগারের মাধ্যমে নানামুখী কর্মকান্ড করা । শ্রেষ্ঠ পাঠাগার নির্বাচন করে পুরস্কৃত করা ইদ্যাদি ।
(৭) সেলুন লাইব্রেরি করা যেতে পারে
(৮) উপহার হিসেবে বই উপহার দেওয়া
(৯) একাডেমিব পড়াশোনার পাশাপাশি অন্যন্যা বই পড়ায় উৎসাহিত করা
(১০) সেরা পাঠকদের পুরস্কৃত করা
(১১) গ্রামে গ্রামে পাঠাগার গড়ে তোলা
(১২) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের লাইব্রেরিতে বই পড়ে কিনা তার প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো
(১৩) প্রচার মাধ্যমে তথ্য ভিত্তিক রিপোর্ট ও প্রামাণ্যচিত্র বা অনুষ্ঠান প্রচার করা

সূচনা বক্তব্যে নরসিংদী পাবলিক লাইব্রেরির সভাপতি ড. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, আমি যখন ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ি, তখন থেকে বই সংগ্রহ শুরু করি। ২০০০ সালে নরসিংদী পাবলিক লাইব্রেরি নামে এটি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ গ্রহণ করে। হাঁটি হাঁটি পা পা করে আজকে এই লাইব্রেরি। বর্তমানে এই লাইব্রেরিতে ৫,০০০ অধিক বই আছে। বই মানুষকে পরিবর্তন করতে পারে। আলোকিত ও মানবিক বাংলাদেশ গঠনে বই পড়ার বিকল্প নেই। সমস্ত জ্ঞান বইয়ের মধ্যে লিপিবদ্ধ থাকে। উষর মরুর ধূসর বুকে বিশাল শহর গড় একটি জীবন সফল করা তার চেয়ে অনেক বড়। মানুষের জীবনকে সফল করার জন্য আমৃত্যু মানুষের কাছে বই পৌঁছে দিতে চাই এবং নিজেও বই পড়ার সাধনা অব্যহত রাখতে চাই। আজকে এই গোল টেবিল বৈঠকে আপনাদের সবাইকে স্বাগত ও ধন্যবাদ কারন আপনারা সময় মত এসেছেন। প্রত্যেকের জন্য ৬ মিনিট বরাদ্ধ। আপনারা বই পড়ার প্রয়োজনীতা ও পাঠক সৃষ্টি উপায় সম্পর্কে আলোচনা করবেন। সবাইকে অভিনন্দন জানিয়ে আমার স্বাগত বক্তব্য শেষ করছি।

ড. আবু মোহাম্মদ আজমল মোর্শেদ বলেন, বই মানুষকে জ্ঞানী করে। বই পড়ার ক্ষেত্রে ভাল বই নির্বাচন করতে হবে। সারা পৃথিবী এখন আমার বই। সারা পৃথিবী থেকে আমি শিখতে পারি। বই পড়ে আমি ভাল কিছু গ্রহণ করবো এবং তা বাস্তবায়ন করবো। সমাজ পরিবর্তনের জন্য জ্ঞান অর্জনের বিকল্প নেই। আর জ্ঞান অর্জন করতে হলে বইয়ের দরকার এবং বই পড়তে হলে লাইব্রেরি দরকার। নরসিংদী পাবলিক লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠা করে ড. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন সমাজ বিনির্মাণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

অধ্যক্ষ আহমাদুর রহমান বলেন, আলোকিত মানুষ মানে আমি একজন সচিব হলাম আর আলোকিত হয়ে গেলাম তা আমি মনে করি না। আলোকিত মানুষ মানে আমি দুর্নীতি করবো না। একজন মানুষ যখন জ্ঞানী হয় তখন সে বিনয়ী হয়। আলোকিত মানুষ গড়তে হলে আলোকিত বই দরকার। আজকে আমি ড. মো. মোয়াজ্জেম স্যারকে অনুরোধ করবো, ভালো ও আলোকিত বই লাইব্রেরিতে রাখার জন্য।

হাসিবুর রহমান অনিক বলেন, আজকে পাঠের প্রয়োজনীতা অনীহা কেন এ সম্পর্কে ৮টি কারণ উল্লেখ করছি- বাস্তবমুখি ও কর্মমুখি শিক্ষার অভাব, ঘনঘন সিলেবাস পরিবর্তন, বাংলাদেশের আচার-আচারণ ধর্মীয় ভিত্তিতে সিলেবাস প্রণয়ন না করা, শিক্ষার্থীদের কল্যাণমুখী প্রশিক্ষণ না দেওয়া, হঠাৎ করে সিলেবাস পরিবর্তন, সঠিক নীতিমালা প্রণয়ন না করা, বিদেশি সংস্কৃতি হঠাৎ গ্রহণ করা, পাঠ্যবই পড়ানোর জন্য মনিটরিং না করা।

আবদুল হালিম বলেন, যখন আমি এন্টারমিডিয়েট এ পড়ি তখন এক মহিলা রান্না করার সময় সাহেব বিবি গোলাম, কড়ি দিয়ে কিনলাম- এগুলো পড়তেন এটি দেখে আমি বই পড়ায় উদ্বুদ্ধ হই। তারপর থেকে বই পড়ার দীর্ঘ ইতিহাস। বর্তমানে ইসলামি বই বেশি পড়ি। নরসিংদী পাবলিক লাইব্রেরি পড়ার একটি দারুন সুযোগ করে দিয়েছে। এই লাইব্রেরি আমাকে নতুন জীবনের সন্ধান দিয়েছে।

মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম বলেন, কুরআনের প্রথম শব্দ ইকরা (পড়)। একটি আলোর কণার পেলে লক্ষ প্রদীপ জ্বলে একটি মানুষ মানুষ হলে বিশ্ব জগৎ টলে। ক্ষুদ্র থেকে বৃহতের সৃষ্টি। আজকের এই লাইব্রেরিটির জন্ম ক্ষুদ্র পরিসর থেকে। একটি বই মানুষ পরিবর্তন করতে পারে, একটি কথা মানুষকে পরিবর্তন করতে পারে। সুতরাং বই পড়ার বিকল্প নেই।

সৈয়দ মাহবুব তামিম বলেন, অসির চেয়ে মশি বড়, অর্থাৎ অস্ত্রের চেয়ে কলমের বা জ্ঞানের ক্ষমতা বেশি। মুক্তিযোদ্ধের সময় অস্ত্রের চেয়ে বেশি কাজ করেছে আমাদের জ্ঞান শক্তি। ড. মো. মোয়াজ্জেম হোসেন পাঠকদের কাছে বই পৌছে দেওয়ার জন্য যে মহৎ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন তা এক কথায় বলা শেষ করা কঠিন। প্রতিদিন তিনি অনেকটা সময় মানুষের কাছে বই পৌছে দেওয়ার কাজ করছেন। সর্বস্থরের মানুষের মাঝে বই বিতরণের যে কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন। আসলে তা নিবিড়ভাবে আমাদের সমাজটাকে নতুনভাবে গড়ে তুলার চেষ্ঠ করছেন। নৈতিকতা নৈতিকবোধ জাগ্রত করতে বই পাঠের বিকল্প নেই।

তুহিন ভূইয়া বলেন, আমেরিকার একজন লেখকের উদ্ধৃতি দিয়ে বলতে চাই- যাদের বই পড়ার অভ্যাস নেই আর যারা বই পড়ে না, তাদের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই। আমরা যারা লেখা পড়া করি তারা নিয়মিত বই পড়ি না। যারা নিয়মিত বই পড়ে তারা অপরাধ করতে পারে না। বই এমন একটি জিনিস যা একশ টাকার বিনিময়ে হাজার টাকার উপকার করে। বই পড়ে আমরা জিনিকে আলোকিত করতে পারি এবং সমাজকেও আলোকিত করতে পারি।

মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, তিরমিযি শরিফের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, জ্ঞান অনুসন্ধান করার জন্য যে বের হয়ে গেলো যতক্ষণ পর্যন্ত ফিরে না আসে ততক্ষণ পর্যন্ত আল্লাহর রহমত বর্ষিত হয়। আমরা ভালোটা গ্রহণ করবো, মন্দটা পরিহার কররো। বই পড়ার ছাড়া আমরা বর্তমান বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারবো না।

মু. জসিম উদ্দিন বলেন, নরসিংদী পাবলিক লাইব্রেরি অবারিত সুযোগ করে দিয়েছে জ্ঞান অর্জনে। দেশি বিদেশি অনেক বই রয়েছে এই লাইব্রেরিতে। বই পড়ে আমাদের মেধার বিকাশ ঘটাতে পারি এবং আলোকিত মানবিক বাংলাদেশ গঠন করতে পারি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..