1. [email protected] : admi2019 :
  2. [email protected] : খুলনা বিভাগ : খুলনা বিভাগ
  3. [email protected] : Monir monir : Monir monir
  4. [email protected] : Mostafa Khan : Mostafa Khan
  5. [email protected] : mahin : mahin khan
শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ০৬:০৫ অপরাহ্ন

সুখবর জানাতে শনিবার প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৯৪ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকা থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের সুখবর জানাতে শনিবার সংবাদ সম্মেলনে যুক্ত হবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিমের স্বাক্ষরিত এক বার্তায় এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, শনিবার বিকেল ৪টায় তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের করবী হলে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়াল যুক্ত হয়ে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেবেন।

গণমাধ্যমগুলোকে নির্ধারিত সময়ে প্রধানমন্ত্রী বিটের প্রতিনিধিদের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের করবী হল প্রান্তে পাঠাতে বলা হয়েছে বার্তায়। এ ক্ষেত্রে এসবি পাশের বাধ্যবাধকতা প্রযোজ্য হবে না বলে জানানো হয়েছে।

১৯৭৫ সালে জাতিসংঘের স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকায় প্রথমবারের মতো অন্তর্ভুক্ত হয় বাংলাদেশ। জাতিসংঘের সামাজিক-অর্থনৈতিক বিভাগের তথ্য বলছে, স্বাধীনতার ৪৪ বছর পর ২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো নিম্ন মধ্য আয়ের দেশের তালিকায় স্থান পায় বাংলাদেশ।

তিন বছর পর ২০১৮ সালে প্রথমবারের মতো এলডিসি থেকে উত্তরণের জন্য প্রয়োজনীয় তিনটি যোগ্যতা অর্জিত হয়। আগামী আরও তিন বছর এই যোগ্যতাগুলো ধরে রাখতে পারলে ২০২৪ সালে চূড়ান্তভাবে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্য আয়ের দেশে উন্নীত হবে বাংলাদেশ।

স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) থেকে বের হয়ে পূর্ণ উন্নয়নশীল দেশ হওয়ার জন্য সুপারিশ পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (সিডিপি) ত্রিবার্ষিক মূল্যায়নের পর শুক্রবার রাতে এই ঘোষণা দিতে পারে।

তবে এলডিসি থেকে বের হয়ে পূর্ণ উন্নয়নশীল দেশ হওয়ার চূড়ান্ত স্বীকৃতি মিলতে বাংলাদেশকে আরও পাঁচ বছর অপেক্ষা করতে হতে পারে।

সাধারণত সিডিপির সুপারিশের তিন বছর পর চূড়ান্ত স্বীকৃতি মেলে। কিন্তু গত ১৫ জানুয়ারি সিডিপির সঙ্গে বৈঠকে বাংলাদেশ আরও দুই বছর সময় চেয়েছে।

সিডিপি বাংলাদেশের সেই অনুরোধ রেখে সুপারিশ করলে ২০২৬ সালে চূড়ান্ত স্বীকৃতি মিলবে। ওই বছর জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে এই চূড়ান্ত স্বীকৃতি দেবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..